কিভাবে IELTS Writing এ ৭ পাবেন ?

How to Develop the Mental Strength for Success in Life
How to Develop the Mental Strength for Success in Life
November 29, 2021
To Grow up or not
To Grow up or not
December 7, 2021

কিভাবে IELTS Writing এ ৭ পাবেন ?

কিভাবে IELTS Writing এ ৭ পাবেন

অনেকেই জানতে চেয়েছেন Writing-এর ব্যাপারে কীভাবে প্রস্তুতি নেবেন। আসলে একেকজনের জন্য একেক কৌশল কাজ করে।

1) প্রথম পয়েন্ট হল, অন্যদের চেয়ে নিজেকে আলাদাভাবে প্রকাশ করতে হবে। ১০০ জন পরীক্ষার্থী যদি পরীক্ষা দেয়, দেখা যাবে অধিকাংশ Test Taker লিখবে মোটামুটি একই স্টাইলে।

অল্প সংখ্যাক চেষ্টা করবে ভিন্নভাবে লিখতে। আপনাকে শেষোক্তদের একজন হতে হবে।

2) আর্টিকেলের প্রতিটা লাইন গুরুত্বপূর্ণ হতে হবে। অর্থাৎ লেখা বড় করার জন্য মনের মাধুরী মিশিয়ে যা ইচ্ছা তাই লেখা যাবে না।

প্রতিটা লাইনের মাধ্যমে টপিকের উপর ফোকাস করতে হবে। টপিকে যা নিয়ে লিখতে বলেছে, সে বিষয়ে আপনার যুক্তি দেখাতে হবে।

3) Academic writings এর সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হচ্ছে ১ ঘন্টা সময়ের মধ্যে ২ টা Task লিখে শেষ করে আবার রিভিশন দেওয়া, এই জন্য প্রশ্ন পাওয়ার সাথে সাথে Task-1 and Task-2 এ কি লিখবেন তা প্রশ্নের নীচে keywords দিয়ে ক্রমান্বয়ে সাজিয়ে নিন।

এক্ষেত্রে আপনি সময় বরাদ্দ রাখবেন, Brain strom করে Idea বের করে তা প্রশ্নে লিখার জন্য।আগে থেকে আউটলাইন বানিয়ে রাখলে Task-1 ১৫/১৮ মিনিটে শেষ করা যায়।


4) আপনার Task 2 এর (Body Pragraph) বডি প্যারাগ্রাফগুলো Organised হতে হবে। এটা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভালো স্কোর এর জন্য।

আপনি যদি প্যারাগুলোর Organisation ঠিকমতো করতে না পারেন তাহলে আপনার ভালো স্কোর করাটা অনেকটা অসম্ভব হয়ে যাবে।


5) আপনাকে Paraphrase করা জানতে হবে। আপনি যদি Sentence গুলোর Paraphrase না করতে পারেন তাহলে আশানুরুপ স্কোর না আসাটাই স্বাভাবিক।

কারণ প্রশ্নে যেভাবে তথ্য উল্লখে করা থাকে, তাকে সরাসরি উঠিয়ে দিলে মার্কস ভালো আসবে না।

6) সবাই যে শব্দটা লিখবে, আপনি সেটার বদলে বিকল্প শব্দ ব্যবহার করলে অবশ্যই পরীক্ষকের মনে দাগ কাটতে পারবেন। যেমন: সবাই খাওয়ার ইংরেজি Eat লিখল, আর আপনি লিখলেন Consume;

সবাই গাড়িকে Car লিখল, আর আপনি লিখলেন Motor Vehicle, Automobile

7) এছাড়া প্রশ্নে যে ভোকাবুলারি (Vocabulary) ব্যবহার করা হয়েছে, সেগুলোও লেখা উচিত নয়। এতে নাম্বার কমে যায়। সেগুলোর বদলে সমার্থক শব্দ (Synonym) ব্যবহার করুন।

8) গ্রামার ১০০% ঠিক রেখে লিখতে হবেএকটা বাক্য লিখতে গিয়ে যদি verb-এ গণ্ডগোল করেন, বা gerund/tense ইত্যাদিতে ভুল করেন, স্বাভাবিকভাবেই স্কোর কমে যাবে।

তাই যখন বাসায় প্র্যাকটিস করবেন, চেষ্টা করবেন ইংরেজি গ্রামারে দক্ষ কাউকে দিয়ে লেখাগুলো চেক করিয়ে নিতে।

9) ক্ষেত্রবিশেষে Passive voice ব্যবহার করতে হবে।সবসময় “I did this job, He introduced his mother to me” ধরনের Active voice না লিখে

“This job was done by me, His mother was introduced to me by him” ধরনের Passive voice লেখা দরকার। এতে লেখায় বৈচিত্র্য আসে, আর বৈচিত্র্য মানেই বেশি নাম্বার পাওয়ার সুযোগ!

10) বানান ঠিক রাখতে হবে।এটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। একটা ভালো লেখা মুহূর্তে নষ্ট হয়ে যেতে পারে বানান ভুলের কারণে।

11) কি কি করবেন না – একটি word/vocab ২ বার এর বেশি ব্যাবহার করবেন না, অন্য মনস্ক হয়ে সিলি Spelling Mistake করবেন না।

Simple Sentence কম লিখবেন, আর মানুষ যে word গুলো common ব্যাবহার করে ওইগুলা একদম লিখবেন না,

উদাহরণ : Good, bad, important, interesting, old এই ধরনের। অন্য সিনোনিম ব্যবহার করুন।

12) বেশিরভাগ ক্ষেত্রে মনের ভাব প্রকাশ করার জন্য আমরা সরল বাক্য ব্যবহার করে থাকি।

কিন্তু ভালো স্কোরের জন্য জটিল বাক্য (complex sentence), খণ্ড বাক্য (Clauses) ইত্যাদি ব্যবহার করতে হবে।

13) কি কি করবেন – although, while, whereas, and ইত্যাদি দিয়ে দুটো বাক্য জুড়ে দিন, দেখবেন দারুন Adverbial clause এবং Complex Sentence তৈরি হচ্ছে।

14) Linker বা Cohesive Device use such as and, also, too, Nevertheless,By comparison, Absolutely,Obviously, In addition, In the first place, etc ব্যবহার করুন, অনেক স্কোর বাড়বে।

15) Introduction and Conclusion এ বেশি জটিল (Complex) করবেন না, Make it Simple and readable, Don’t show off with irrelevant vocabulary.

16) Body paragraph এ সময় বেশি দিন, example ব্যাবহার করুন ( Task-2)….রাইটিং Task-2 তে প্রাসঙ্গিক উদাহরণ টানতে হবে।দৈনন্দিন জীবন থেকে প্রাসঙ্গিক উদাহরণ দিতে হবে। তিনটা, চারটা উদাহরণ দিলে ভালো।

17) Task-1, ৩ টা প্যারাগ্রাফে লিখবেন, আর Task-2, ৪ টা প্যারাগ্রাফ মডেলে লিখবেন।

18) শব্দ সংখ্যা সঠিক রাখতে হবে।IELTS-এর Task-1এর জন্য মিনিমাম রেঞ্জ দেওয়া থাকে ১৫০ শব্দ, আর Task-2 এর জন্য ২৫০ শব্দ।

অবশ্যই এর চেয়ে বেশি লিখুন, সমস্যা হবে না কোনো। কিন্তু কম লেখা যাবে না, নাম্বার কাটা যাবে।


19) Task-1 এ আপনাকে 150 Words লিখতে বলবে। কিন্তু আপনি সর্বদা চেষ্টা করবেন 180+ Words লিখার।আগে থেকে আউটলাইন বানিয়ে রাখলে ১৫/১৮ মিনিটে শেষ করা যায়।

20) Task-1 এর রাইটিংয়ে ভালো স্কোর তোলার আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ পয়েন্ট হল, প্রশ্নে যা লেখা থাকে, সেটাকে শতকরা বা percentage-এ প্রকাশ করা।

প্রশ্ন আসতে পারে, কেন শতকরায় প্রকাশ করতেই হবে? করতে হবে কারণ প্রশ্নে যেভাবে তথ্য উল্লখে করা থাকে, তাকে সরাসরি উঠিয়ে দিলে মার্কস ভালো আসবে না। ঐ তথ্যকে নতুনভাবে প্রকাশ করতে হবে।

21) একইভাবে, প্রশ্নে কোনো তথ্য শতকরায় উল্লেখ করা থাকলে আপনি সেটাকে পূর্ণ সংখ্যায় প্রকাশ করে লিখুন।৫/৩ মিনিট রিভিশন দিয়ে একেবারে বিদায় দিয়ে দিন।

22) আর Task 2 তে 250 Words বলা হবে লিখার জন্য। কিন্তু আপনি অন্তত 300 Words লিখার চেষ্টা করবেন।

মনে রাখবেন ৫ মিনিট রিভিশনের জন্য। এক্সাম হলে দেওয়ালে ঘড়ি থাকবে, প্রয়োজনে ঘড়ি দেখুন।তাহলে স্কোর ভালো আসার সম্ভাবনা খুব বেশি।


23) লেখা কখনো Incomplete রেখে আসবেন না। It Will Extremely Harm Your Score.

24) Task 2 সর্বদা আগে করার চেষ্টা করবেন। কারণ, Task 1 এ আপনাকে সব Information দেয়া থাকবে। আপনি শুধু Information গুলো নিয়ে লিখবেন।

আপনার এখানে বেশি সময় লাগবে না। আর Task-2 হচ্ছে আপনার টাইম কিলার। কারণ, Task 2 সম্পূর্ণ নিজের মতো করে, নিজের Idea দিয়ে লেখা লাগবে।

যেটা আপনাকে কিছুটা হলেও প্যারা দিবে। তাই আগে Task-2 করতে পারলে আপনার সুবিধা হতে পারে।


25) Task-2 লেখার আগে প্রথমে ৫ মিনিট সময় নেবেন Concept টা তৈরীর জন্য যে আপনি কী লিখবেন, আপনি কোন জিনিসটাকে কেন্দ্র করে লিখবেন আর তার সঠিক উদাহরণ ও দিতে পারবেন।

এরপর আপনি আপনার লেখা শুরু করবেন। আর Task-2 সর্বদা ৩৫ মিনিট অথবা এর কম সময়ে শেষ করার চেষ্টা করবেন।মনে রাখবেন ৫ মিনিট রিভিশনের জন্য। Revision is undoubtedtly crucial for your obtaining good score.এক্সাম হলে দেওয়ালে ঘড়ি থাকবে, প্রয়োজনে ঘড়ি দেখুন।

26) প্রতিদিন এস্কামের আগে যেকোন ১ টি কাজ করুন, হয় বেশি বেশি ৭+ writings গুলো পড়ুন বিভিন্ন ওয়েভসাইট থেকে আর না হয় প্রতিদিন ১ ঘন্টা করে Task-1 and Task-2 সময় ধরে লিখে একজন IELTS Instructor কে দিয়ে চেক করে শুধু ভুল বের করতে বলুন।

27) Writing এ ভালো করার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ উপায় হলো Practice আপনি সব জানেন Writing এর ব্যাপারে কিন্তু প্র্যাকটিস করেন না। পরীক্ষায় ভালো করতে পারবেন না।তাই প্রতিদিন practice করুন।

28) যে বইগুলো আপনি পড়বেন: Rachel Mitchell Writing Task (1+2) and IELTS Advantage Writing Skills।

Compiled By: Rajib Barua(IELTS Trainer)



Leave a Reply

Your email address will not be published.

x
error: Content is protected !!